অ্যানিমিয়া বা রক্ত স্বল্পতার কারণ লক্ষণ ও চিকিৎসা



anaemia in bangla, anaemia

লোহিত রক্ত কনিকা আমাদের শরীরে হিমোগ্লোবিন নামক এক বিশেষ ধরণের প্রোটিনের সাহায্যে পরিবাহিত হয়ে অক্সিজেন পরিবহণ করে। অ্যানিমিয়া লোহিত রক্ত কনিকা ও হিমোগ্লোবিন এর গুনগত ও পরিমাণগত ঘাটতি জনিত রোগ।




অ্যানিমিয়া বা রক্ত স্বল্পতা দেখা দিলে হৃদযন্ত্র কে বেশী বেশী কাজ করতে হয় শরীরে পর্যাপ্ত রক্ত ও অক্সিজেনের সর্বরাহ স্বাভাবিক রাখার জন্য। সাধারণত গর্ভবতী নারী ও বাচ্চাদের অ্যানিমিয়া বেশী দেখা যায়। আমাদের দেশের শতকরা ৩০ ভাগ মানুষ রক্তস্বল্পতা বা অ্যানিমিয়ায় আক্রান্ত।



causes of anaemia,causes of anaemia in bangla

causes of anaemia,causes of anaemia in bangla
অ্যানিমিয়ার ধরনঃ

সাধারণ প্রকারে অ্যানিমিয়াকে ৩টি গ্রেড এ ভাগ করা যেতে পারেঃ



গ্রেড-১ মাইল্ড আনেমিয়াঃ

এক্ষেত্রে অতি অল্প মাত্রায় হিমোগ্লোবিন কম থাকে(হিমোগ্লোবিন ৯-১১ মিলিগ্রাম/ডেসি লিটার)



গ্রেড-২ মোডারেট আনেমিয়াঃ

হিমোগ্লোবিন এর পরিমাণ ৭-৯ মিলিগ্রাম/ডেসি লিটার থাকে ।



গ্রেড-৩ সিভিয়ার আনেমিয়াঃ
হিমোগ্লোবিন এর পরিমাণ ৬ মিলিগ্রাম/ডেসি লিটার এর নিচে থাকে।


চিকিৎসাঃ

অ্যানিমিয়ার চিকিৎসা নির্ভর করে কারণ ও ধরণের উপর

গ্রেড-১ মাইল্ড আনেমিয়াঃ
আয়রন সমৃদ্ধ খাবার যেমন লাল শাক, কচু, কলিজা, ডিম, দুধ, কলা, ডাবের পানি ইত্যাদি খেলে ৩ সপ্তাহেই সেরে যায়।

গ্রেড-২ মোডারেট আনেমিয়াঃ
খাবারের পাশাপাশি আয়রন ও ফলিক আসিড সাপ্লিমেন্ট প্রয়োজন হয়।

গ্রেড-৩ সিভিয়ার আনেমিয়াঃ
রক্ত পরিসঞ্চালনের প্রয়োজন হতে পারে।



এছাড়া অ্যানিমিয়ার সাথে যদি স্প্লিন বা প্লীহা অতিরিক্ত বড় হয়ে যায় সেক্ষেত্রে স্প্লেনেক্টমি নামক সার্জারির প্রয়োজন হতে পারে। ইনফেকশন থাকলে অবশ্যই আন্টিবায়োটিক খেতে হবে।

Post a Comment

0 Comments