হাঁটুর লিগামেন্ট ইনজুরি


হাঁটুর লিগামেন্ট ইনজুরি
হাঁটুর লিগামেন্ট ইনজুরি
হাঁটুর লিগামেন্ট ইনজুরি

লিগামেন্ট ইনজুরি কেন হয়?

বিভিন্ন কারণে লিগামেন্ট ইনজুরি হতে পারে তবে তিন ধরণের কারণে ইনজুরি বেশি দেখা যায়।

১। স্পোর্টস বা খেলাধুলা

২। দুর্ঘটনা জনিত আঘাত

৩। সামরিক ট্রেনিং

লিগামেন্ট কি?

লিগামেন্টস টিস্যুর কঠিন ব্যান্ড যা আপনার শরীরে হাড়ের সংযোগ ঘটায়।হাঁটুতে চারটি লিগামেন্ট রয়েছে যা সাধারণত ইনজুরি প্রবণ। এই চার লিগামেন্ট আমাদের হাঁটুকে ধরে রাখে। খেলতে গিয়ে বা আঘাত জনিত কারণে এই লিগামেন্ট ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে অথবা ছিরেও যেতে পারে। এই পোস্টে আমি আপনাদের হাঁটুর এই চার ধরণের লিগামেন্ট নিয়ে ধারণা দেয়ার চেষ্টা করব।

এগুলো যথাক্রমে
এন্টেরিওর ক্রুশিয়েট লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে এ সি এল ইনজুরি

এন্টেরিওর ক্রুশিয়েট লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে সি এল ইনজুরি

১। এন্টেরিওর ক্রুশিয়েট লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে এ সি এলঃ এটি হল সর্বাধিক ইনজুরি প্রবণ লিগামেন্ট যা থাই বোন কে শিন বোন এর সাথে কানেক্ট করে। এটি খেলা জনিত,দুর্ঘটনা জনিত আঘাত দ্বারা অথবা মিলিটারি পারসন দের ট্রেইনিং জনিত আঘাত থেকে সহজেই পারশিয়াল বা কমপ্লিট টিয়ার হতে পারে।
পোস্টেরিওর ক্রুশিয়েট লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে পি সি এল ইনজুরি

পোস্টেরিওর ক্রুশিয়েট লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে পি সি এল ইনজুরি


২। পোস্টেরিওর ক্রুশিয়েট লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে পি সি এলঃ এটিও থাই বোন কে শিন বোন এর সাথে কানেক্ট করে তবে এটি সাধারণত অপেক্ষাকৃত পশ্চাতে থাকে। এটির ইনজুরি বেশ দুষ্প্রাপ্য তবে মোটরসাইকেল বা গাড়ির দুর্ঘটনায় এটি ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে। মোটকথা আপনার হাঁটু ভাঁজ করা অবস্থায় যদি কোন আঘাত পেয়ে থাকেন তবেই  পি সি এল ইনজুরির সম্ভাবনা থাকে।
মিডিয়াল কোল্যাটেরাল লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে এম সি এল ইনজুরি

মিডিয়াল কোল্যাটেরাল লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে এম সি এল ইনজুরি
৩। মিডিয়াল কোল্যাটেরাল লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে এম সি এলঃ এটি ভেতরের দিক থেকে থাই বোন এর সঙ্গে শিন বোন এর সংযোগ রক্ষা করে। এম সি এল ইনজুরি হলে খুব বেশি চিন্তার কারণ নেই,খুব ভালো সেরে ওঠার ক্ষমতা এর রয়েছে তাই সাধারণত কনজারভেটিভ বা নন সার্জিকাল চিকিৎসায় এটি ৩-৪ সপ্তাহেই সেরে যায়।

ল্যাটেরাল কোল্যাটেরাল লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে এল সি এল ইনজুরি

ল্যাটেরাল কোল্যাটেরাল লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে এল সি এল ইনজুরি
৪। ল্যাটেরাল কোল্যাটেরাল লিগামেন্ট বা সংক্ষেপে এল সি এলঃ বাহিরের দিক থেকে থাই বোন এর সঙ্গে ফিবুলার সংযোগ রক্ষা করাই এল সি এল এর কাজ। এর ইনজুরি খুবই দুষ্প্রাপ্য।
হাঁটুর গঠন
হাঁটুর গঠন
এই লিগামেন্ট গুলির বাহিরেও মিনিস্কাস বা পাতলা পর্দা নামক এক ধরণের তরুণাস্থি হাঁটুর হাড় গুলোর মাঝে বসানো থাকে, যা ঘর্ষণ জনিত আঘাত থেকে হাড় গুলিকে রক্ষা করে এবং একই সঙ্গে দৃঢ়টা রক্ষা করে। মিনিস্কাস থাকার কারণে ঊরুর হাড় পায়ের হাড় এর সঙ্গে ঘসা যায় না ফলে হাড় গুলির প্রান্ত ক্ষয় হয় না।
পরবর্তী পোস্টে আমি আপনাদের সাথে পর্যায়ক্রমিক এই চার ধরণের লিগামেন্ট ইনজুরির কারণ,উপসর্গ,ইনজুরির ধরন নির্ণয়ের কৌশল এবং চিকিৎসা পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করব।



Post a Comment

0 Comments